বাংলায় সর্বপ্রথম, সর্ববৃহৎ ও সর্বাধিক জনপ্রিয় প্রশ্ন-উত্তরভিত্তিক ও সমস্যা সমাধানের উন্মুক্ত কমিউনিটি "হেল্পফুল হাব" এ আপনাকে স্বাগত, এখানে আপনি যে কোনো প্রশ্ন করে উত্তর নিতে পারবেন একদম বিনামূল্যে এবং কোনো প্রশ্নের সঠিক উত্তর জানা থাকলে তা প্রদান করতে পারবেন। রেজিস্ট্রেশান না করেই অংশগ্রহণ করতে পারবেন তবে, সর্বোচ্চ সুবিধার জন্য বিনামূল্যে রেজিস্ট্রেশান করুন!

> বাংলা ভাষায় সর্বপ্রথম সম্পূর্ণ প্রশ্ন-উত্তরভিত্তিক এবং সমস্যা সমাধানের উন্মুক্ত কমিউনিটি "হেল্পফুল হাব" এ আপনাকে স্বাগত, এখানে আপনি যে কোনো প্রশ্ন করে উত্তর নিতে পারবেন এবং কোনো প্রশ্নের সঠিক উত্তর জানা থাকলে তা প্রদান করতে পারবেন।

Welcome to Helpful Hub, where you can ask questions and receive answers from other members of the community.

14.6k টি প্রশ্ন

16.2k টি উত্তর

5.7k টি মন্তব্য

5.9k জন নিবন্ধিত

0 টি ভোট
208 বার প্রদর্শিত
এখানে অনেক মুসলিম ভাই আছেন তারা যুক্তি দিয়ে ব্যাখ্যা করেন। আমি নিজে মুসলিম নই। কিন্তু বিশ্বের মধ্যে মুসলিম সমস্ত দেশে সন্ত্রাস বেশি সৃষ্টি করে। তাহলে কি করে ইসলাম শান্তির ধর্ম?
"ধর্ম ও বিশ্বাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অজ্ঞাত সদস্য

3 উত্তর

+2 টি ভোট
ইসলাম মূলত একটি পূর্ণাঙ্গ জীবনবিধান। ইসলাম মূলত সৎ কাজে আদেশ দেয়া ও অসৎ কাজে নিষেধ করা/ বাধা দেয়া এবং এগুলো বাস্তবায়নের মাধ্যমে শান্তিতে বিশ্বাস করে। ইসলামে মানুষের মৌলিক চাহিদাগুলো মেটানোর পরে জ্ঞানার্জনকে প্রথম আবশ্যিক কর্তব্য হিসেবে নির্ধারণ করা হয়েছে। হাদীসে উল্লেখ আছে যে ক্ষুধার্ত মানুষ আল্লাহকেও অস্বীকার করতে পারে। আর তাই ইসলাম ক্ষুধার্ত মানুষকে ইসলামের কথা বলার আদেশ দেয় না। তার অভাব মিটিয়ে তারপর তাকে ইসলামের কথা বলতে হবে। মানুষই যদি না বাঁচে তবে কাকে ইসলামের কথা বলবেন?

মুসলমানগণ এই প্রথম কর্তব্য পালনে গাফিলতি করায় আজ মুসলমানদের এই অবস্থা। একসময় বিজ্ঞানের বিভিন্ন শাখায় মুসলিমদের ভাল দখল ছিল। এবং তারা পরবর্তীতে বিভিন্ন আবিষ্কার করেছিলেন। কিন্তু গোঁড়া ইসলামপন্থীরা ইসলামের সবচেয়ে বড় ক্ষতি করেছে এবং এখনো করে যাচ্ছে। যারা ক্ষমতালোভী তারা কখনো চায় না ক্ষমতা হারাতে। তাই তাদের বিভিন্ন দূরদর্শী কৌশলের ফলে পরবর্তীতে মুসলিমরা জ্ঞানার্জন থেকে পিছিয়ে পড়ল। আর এভাবে পরবর্তীতে বিভিন্ন মুসলিম দেশে আক্রমণের ফলে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য হারিয়ে গেছে। এখন আপনার যদি জানার আগ্রহ থাকে তবে আপনাকে লেখাপড়া করতে হবে, জ্ঞানার্জন করতে হবে। বাংলায় না বুঝলে বা কোন বিষয় যদি ভুল মনে হয় তবে মূল আরবীর অর্থ আপনাকে জানতে হবে। ভুল বাংলা অনুবাদের জন্য আপনি অবশ্যই মূল কোরান-হাদীসকে ভুল বলতে পারেন না। এখন মুসলিমরা এ ব্যাপারে কম সচেতন হওয়ায় আরবীর যথার্থ অনুবাদ কোন কোন ক্ষেত্রে ভুল করা হয়ে গেছে। এমনকি কোন কোন ক্ষেত্রে মুসলিমরাই যথার্থ অনুবাদ ও ব্যাখ্যা সম্বলিত তথ্য-প্রমাণ ধ্বংস করেছে।

ইসলাম কাউকে জোর করে মুসলিম বানাতে বলে না। তেমনি কেউ যদি স্বেচ্ছায় ইসলাম গ্রহণ করে, তবে আপনিও তার উপর এজন্য কোনভাবে নির্যাতন করতে পারেন না। ইসলাম মানুষকে নৈতিক শিক্ষা দেয়ার পাশাপাশি আত্মিক উন্নতির উপরও জোরারোপ করে। সৎ সঙ্গের সাথে থাকতে বলে ও অসৎ সঙ্গ ত্যাগ করতে বলে। সৎ কাজ করার চেয়ে সৎ কাজ করে এমন মানুষের সঙ্গ অধিক উত্তম।

যারা ইসলামের নামে বোমাবাজি করে, মানুষের ক্ষতি করে তারা ইসলাম সম্বন্ধে ভালোভাবে না জেনেই এমনটি করে। ইসলামে কেউ আসলে তাকে পরিপূর্ণভাবে আসতে হবে। তবে খেয়াল করে দেখবেন যে বিভিন্ন দেশে ইসলাম-এর অনুসারীদের উপর অত্যাচার করা হয় এবং সেখানকার অনেকেই প্রতিবাদ হিসেবে বা প্রতিশোধ নেয়ার জন্য এমনটি করেছে। আবার কিছু কিছু কুচক্রী লোক বা দল কম জ্ঞানসম্পন্ন মুসলিমদের ভুল বুঝিয়ে তাদের দ্বারা এরকম খারাপ কাজ করিয়ে ইসলামের প্রতি মানুষকে বিতৃষ্ণ করছে যাতে মানুষ মনে করে যে ইসলাম আসলেই একটা খারাপ বিষয়। এভাবে ইসলামকে মোকাবেলা করতে সুবিধা হবে।

সম্প্রতি একটি ওয়েবসাইট-এর সন্ধান পেয়েছি। তাদের চিন্তাধারা ভাল লাগল। আপনিও দেখতে পারেন। তাদের কাছে প্রশ্নও করতে পারেন।

http://correctislamicfaith.com/

 

 

Signature:

"সৎ কাজ করার চেয়ে সৎ সঙ্গ অধিক উত্তম।"
উত্তর প্রদান করেছেন Expert Senior User (6.3k পয়েন্ট)
সম্পাদিত করেছেন
obosoi islam santir dhormo.........
+1 টি ভোট
ইসলাম ১০০% শান্তির ধর্ম  এতে কোনই সন্দেহ নাই। তবে আপনি জ বললেন ইসলাম অশান্তি ঘটায় এটা একটা ভিত্তিহিন অভিযোগ। কারন ইসলাম কখনই এসব শিখায় না। ইসলাম ধরমে আছে হত্যা মহাপাপ। কেউ যদি কাউকে হত্যা করে, আর তার বিচার যদি না হয় সে কখনো জান্নাতে জেতে পারবেনা।

তবে মানুষ আজ ধর্ম কর্ম মানেনা তাই এটা করে।

আর একটা বড় বিষয় হল মুসলিম শান্তির ধর্ম বলে মুসলিম বিদ্বেষীরা ভালর বেশে  প্রবেশ করে অঘটন ঘটায় আর নাম পরে মুসলমানের।

যেমনঃ কেউ খুন করতে চাইলে খুনির বেশে গেলে ধরা পরবে তাই ভালো মানুষের সাথে ভালো বেশেই যায়, তারপর খুন করে চলে আসে। মুসলমানের বেপারতা ঠিক তাই।
উত্তর প্রদান করেছেন Expert Senior User (1.3k পয়েন্ট)
+1 টি ভোট
একটি পাত্রে ১০ টি আম আছে। এর মধ্যে ১০টি আমই পচে গেল। হতে পারে ঐ ১০টি আম ভালো ছিল না। তবে তার মানে এই নয় যে আম মানেই পচা। নামে কিছু মুসলমান প্রকৃত মুসলমানের বেশ ধরে এই ধরনের কর্মকান্ড করলে তার দায় ইসলাম ধর্মের উপর পড়বে না। তবে আমরা মুসলমান হিসাবে লজ্জিত তাদের এই কর্ম কান্ডের জন্য। কিছু ইসলামকে রাজনৈতিক স্বার্থে ব্যবহার করার জন্য এরকম সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে। আপনি যদিও মুসলমান নন তারপরেও আমি একজন মুসলিম হিসাবে আপনাকে অনুরোধ করব আপনি প্রকৃত ইসলাম ধর্ম সম্পর্কে জানুন। তারপর নিজের বুদ্ধি দিয়ে বিচার করুন।
উত্তর প্রদান করেছেন Expert Senior User (542 পয়েন্ট)

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

+1 টি ভোট
4 টি উত্তর
0 টি ভোট
3 টি উত্তর
+1 টি ভোট
2 টি উত্তর
0 টি ভোট
2 টি উত্তর
07 সেপ্টেম্বর "ধর্ম ও বিশ্বাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অজ্ঞাত সদস্য

 

(হেল্পফুল হাব এ রয়েছে এক বিশাল প্রশ্নোত্তর ভান্ডার। তাই নতুন প্রশ্ন করার পূর্বে একটু সার্চ করে খুঁজে দেখুন নিচের বক্স থেকে)

(হেল্পফুল হাব সকলের জন্য উন্মুক্ত তাই এখানে প্রকাশিত প্রশ্নোত্তর, মন্তব্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর)

...