বাংলায় সর্বপ্রথম, সর্ববৃহৎ ও সর্বাধিক জনপ্রিয় প্রশ্ন-উত্তরভিত্তিক ও সমস্যা সমাধানের উন্মুক্ত কমিউনিটি "হেল্পফুল হাব" এ আপনাকে স্বাগত, এখানে আপনি যে কোনো প্রশ্ন করে উত্তর নিতে পারবেন একদম বিনামূল্যে এবং কোনো প্রশ্নের সঠিক উত্তর জানা থাকলে তা প্রদান করতে পারবেন। রেজিস্ট্রেশান না করেই অংশগ্রহণ করতে পারবেন তবে, সর্বোচ্চ সুবিধার জন্য বিনামূল্যে রেজিস্ট্রেশান করুন!

> বাংলা ভাষায় সর্বপ্রথম সম্পূর্ণ প্রশ্ন-উত্তরভিত্তিক এবং সমস্যা সমাধানের উন্মুক্ত কমিউনিটি "হেল্পফুল হাব" এ আপনাকে স্বাগত, এখানে আপনি যে কোনো প্রশ্ন করে উত্তর নিতে পারবেন এবং কোনো প্রশ্নের সঠিক উত্তর জানা থাকলে তা প্রদান করতে পারবেন।

Welcome to Helpful Hub, where you can ask questions and receive answers from other members of the community.

14.6k টি প্রশ্ন

16.2k টি উত্তর

5.7k টি মন্তব্য

5.9k জন নিবন্ধিত

0 টি ভোট
157 বার প্রদর্শিত

আমি একটা ছেলেকে বিয়ে করেছি।আমার আর কিছুই ভালো লাগে না এর থেকে ভালো কিছু পেতাম আমি ছেলেটা আমাকে এত ভালোবাসে আর আমার জন্য এত কিছু ত্যাগ করেছে যে আমি আমার বিবেক থেকে সরে আসতে পারিনি এত ভালোবাসা আর কোথাও পাওয়া যাবে না।কিন্তু মাঝে বাবা মার কথা গ্রামে খারাপ কথা শুনার জন্য রাগ হয় আর ওর পড়া শেষ হতে 4 বছর লাগবে এই সব ভেবে কষ্ট হয়।মনে হয় জীবনটা কি নষ্ট করলাম।আচ্ছা কনটা জীবনে বেশি দরকার ভালোবাসা,না টাকা,পড়াশোনা ,ভালো চাকরি।বাবা মা গ্রামের কে কি বলবে তাই মানতে চাই না আর পড়া শেষ হয় নি এটাও বাবা মা বলে আমি কী ভুল করেছি।শুধু নিজের ভাবলে তো সারথোপর মনে হত plz ans ta kub dorkar

"সমাজ ও সম্পর্ক" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন সুধা

1 উত্তর

+1 টি ভোট
পুরো ঘটনাটা বলেননি। আপনি কি বাড়ির অমতে পালিয়ে অন্য ছেলেকে বিয়ে করেছেন? যদি এরকম হয় তাহলে বেকার ছেলের হাত ধরে বাড়ি ছেড়ে খুব একটা বুদ্ধিমানের কাজ করেননি। হ্যাঁ আপনি ভুল করেছেন। আর ভুলের শাস্তি ভোগ করছেন। এই কঠিন অবস্থায় থেকে লড়ায় করাটাই হচ্ছে আপনার জন্যে শাস্তি। এখন এই শাস্তি মেনে নিয়ে এগিয়ে যাওয়াটাই হচ্ছে বুদ্ধিমানের কাজ। মানুষের জীবনে ভালোবাসা, টাকা, পড়াশুনা আর ভালো চাকুরী, এই প্রত্যেকটি জিনিসেরই দরকার রয়েছে। কিন্তু এগুলোকে একটু পর্যায়ক্রমে সাজাতে পারলে ভালো হত। যেমন আগে পড়াশুনা > ভাল চাকুরী > টাকা > তারপরেই ভালোবাসা। এখন আপনি যেহেতু আগে ভালোবাসা দিয়ে শুরু করেছেন তাই এখন আপনাকে বাকি জিনিসগুলোও অর্জন করে নিতে হবে। জানি এটা আপনার জন্যে একটু কঠিন হবে। তবুও অতীতের কথা না ভেবে সামনের দিকে এগিয়ে যান। মনে রাখবেন অভাব ঘরের দরজা দিয়ে ঢুকলে ভালোবাসা জানালা দিয়ে পালিয়ে যেতে পারে তাই সম্পর্কটাকে ধরে রেখে ভালো কিছু করার চেষ্টা করুন যাতে অভাব ঘরে না ঢুকতে পারে। আপাতত ধরে নিন আপনি যা করেছেন সেটা ঠিক কাজই করেছেন। এটা ভেবে আপাতত আপনারা দুজনই পড়াশুনা শেষ করুন। আপনারা নিজের পায়ে দাঁড়িয়ে আপনার বাড়ির লোক ও গ্রামের লোককে দেখিয়ে দিন যে আপনারা যা করেছেন সেটাই ঠিক। 
উত্তর প্রদান করেছেন অজ্ঞাত সদস্য

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

0 টি ভোট
1 উত্তর
09 ফেব্রুয়ারি "সমাজ ও সম্পর্ক" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অধরা
0 টি ভোট
1 উত্তর
16 জুলাই "সমাজ ও সম্পর্ক" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন লিমা
0 টি ভোট
1 উত্তর
0 টি ভোট
1 উত্তর
0 টি ভোট
2 টি উত্তর
22 ডিসেম্বর 2014 "সমাজ ও সম্পর্ক" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন সাগর
0 টি ভোট
2 টি উত্তর
04 অক্টোবর 2012 "সমাজ ও সম্পর্ক" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন লিটন মালয়শিয়া New User (0 পয়েন্ট)
0 টি ভোট
1 উত্তর

 

(হেল্পফুল হাব এ রয়েছে এক বিশাল প্রশ্নোত্তর ভান্ডার। তাই নতুন প্রশ্ন করার পূর্বে একটু সার্চ করে খুঁজে দেখুন নিচের বক্স থেকে)

(হেল্পফুল হাব সকলের জন্য উন্মুক্ত তাই এখানে প্রকাশিত প্রশ্নোত্তর, মন্তব্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর)

...