বাংলায় সর্বপ্রথম, সর্ববৃহৎ ও সর্বাধিক জনপ্রিয় প্রশ্ন-উত্তরভিত্তিক ও সমস্যা সমাধানের উন্মুক্ত কমিউনিটি "হেল্পফুল হাব" এ আপনাকে স্বাগত, এখানে আপনি যে কোনো প্রশ্ন করে উত্তর নিতে পারবেন একদম বিনামূল্যে এবং কোনো প্রশ্নের সঠিক উত্তর জানা থাকলে তা প্রদান করতে পারবেন। রেজিস্ট্রেশান না করেই অংশগ্রহণ করতে পারবেন তবে, সর্বোচ্চ সুবিধার জন্য বিনামূল্যে রেজিস্ট্রেশান করুন!

> বাংলা ভাষায় সর্বপ্রথম সম্পূর্ণ প্রশ্ন-উত্তরভিত্তিক এবং সমস্যা সমাধানের উন্মুক্ত কমিউনিটি "হেল্পফুল হাব" এ আপনাকে স্বাগত, এখানে আপনি যে কোনো প্রশ্ন করে উত্তর নিতে পারবেন এবং কোনো প্রশ্নের সঠিক উত্তর জানা থাকলে তা প্রদান করতে পারবেন।

Welcome to Helpful Hub, where you can ask questions and receive answers from other members of the community.

14.6k টি প্রশ্ন

16.2k টি উত্তর

5.7k টি মন্তব্য

6k জন নিবন্ধিত

0 টি ভোট
354 বার প্রদর্শিত


"ধর্ম ও বিশ্বাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন New User (2 পয়েন্ট)

2 উত্তর

+1 টি ভোট
 
নির্বাচিত

হিজাব বা পর্দা [নারী ও পুরুষ্]

হিজাব সম্পর্কে আল কুরআন ও সহীহ হাদিস শরীফে উল্লেখ আছে। প্রধানত নিয়ম ৬টি।
[পুরুষ ও মহিলাদের উভয়ের জন্য] 
১।পুরুষদের জন্য নাভী থেকে হাটু পর্যন্ত ঢেকে রাখতে হবে।মহিলাদের জন্য মুখ ও হাতের কব্জি ছাড়া সমস্ত দেহ ঢাকতে হবে।
 ২।যে সব পোশাক পরিধান করবে তা কোন প্রকার আটসাট হবে না যে,তাদের শরীরের গড়ন বোঝা যাবে। 
৩।পোশাক পরিচ্ছদ সচ্ছ হবে না, যাতে ভেতর থেকে দেখা যায়্।
৪।পোশাক পরিচ্ছদ আকর্ষনীয় হবে না যা বিপরীত ব্যক্তিকে আকর্ষন করে।
 ৫।এ পোশাক পরিচ্ছদ এমন হবে না ,যা অমুসলিম্দের মত ,যেমন খ্রিস্টানদের ক্রস হতে পারবে না। 
 ৬।এমন পোশাক পরিধান করা যাবে না,যা বিপরিত লিংগের পোশাকের মত। হিজাব বলতে শুধু পোশাক বোঝায় না। কোন ব্যক্তির আচরন ,ব্যবহার্,দৃষ্টি, ভংগি এমনকি ইচ্ছাকে বোঝায়্।পোশাক পরিচ্ছদের পাশাপাশি চোখ্, মন্,চিন্তা এমনকি হৃদয়ের হিজাব থাকবে। 
 আব্দুল্লাহ ইবনে মাসউদ (রা) হতে বর্নিত,নবী করিম (সা) বলেছেন যে, মহিলারা হলো পর্দায় থাকার বস্তূ । সুতরাং তারা যখন পর্দা ছাড়া বাহিরে আসে,তখন শয়তান তাদেরকে (অন্য পুরুষের চোখে সুসজ্জিত করে দেখায়্। [তিরমিযী] 

 নবী করিম (সা) বলেন্, যে ব্যক্তি কোন অপরিচিত নারীর প্রতি যৌন লোলুপ দৃষ্টি নিক্ষেপ করে, কিয়ামতের দিনে তার চোখে উত্তপ্ত গলিত লোহা ঢেলে দেয়া হবে।
[ফাতহুল কাদির্]

উত্তর প্রদান করেছেন Senior User (121 পয়েন্ট)
নির্বাচিত করেছেন
0 টি ভোট

ছেলেদের পর্দাঃ


১. জামা পরতে হবে যা হাতের কব্জি পর্যন্ত এবং কোমরের নিচ পর্যন্ত ঢেকে রাখতে পারে, প্যান্ট কমপক্ষে হাটুর নিচ পর্যন্ত ঢাকতে পারে- এরকম হতে হবে,


২. বিনা প্রয়োজনে মেয়েদের দিকে তাকানো যাবে না, অনিচ্ছাকৃতভাবে চোখ পড়ে গেলে তৎক্ষণাৎ দৃষ্টি ফিরিয়ে নিতে হবে,


৩. আঁটসাঁট ও স্বচ্ছ পোশাক পরা যাবে না,


৪. বিয়ে করা যায়- এরকম সম্পর্কের মেয়েদের সাথে হাসিঠাট্টা করা যাবে না, বিনা দরকারে কথা বলা যাবে না।



মেয়েদের পর্দাঃ


১. মুখমণ্ডল (মাথার চুল ঢেকে রাখতে হবে), হাতের আঙুল থেকে কবজি পর্যন্ত, ও টাখনুর নিচ থেকে পায়ের পাতা খোলা রাখা যাবে আর সমস্ত শরীর ঢেকে নিতে হবে,


২. এমন কাপড় পরতে হবে যার দ্বারা শরীরের গঠন বোঝা যাবে না ও ত্বক দেখা যাবে না,


৩. মৃদু প্রকৃতির সুগন্ধী ব্যবহার করা যাবে যার গন্ধ আশেপাশে ছড়ায় না অর্থাৎ যে সুগন্ধী শুধু শরীরের দুর্গন্ধকে দূর করে এরকম,


৪. মুখে লিপিস্টিক বা মেকআপ করা যাবে না,


৫. বিয়ে করা যায়- এরকম সম্পর্কের পুরুষের সাথে হাসিঠাট্টা করা যাবে না ও তাদের দিকে তাকানো যাবে না বিনা প্রয়োজনে,


৬. এমন অলঙ্কার পরতে হবে যা থেকে কোনো শব্দ হয় না,


৭. একটা বড় কাপড় বা চাদর দিয়ে মাথা ঢেকে বুকের সামনে ফেলে দিতে হবে।


ছেলেমেয়ে উভয়ের জন্য সাধারণ পর্দাঃ


১. কারোর রুমে প্রবেশ করার সময় অনুমতি নিতে হবে,


২. অমুসলিমদের ধর্মীয় আচারের সাথে সম্পর্কিত এরকম পোশাক বা চিহ্ন ব্যবহার করা যাবে না


মনে রাখা কর্তব্যঃ


মেয়েদের পর্দা = বোরকা - এটা ভুল ধারণা, সালোয়ার-কামিজ বা শাড়ী যদি উপরের নিয়ম মেনে পরা হয় সেটাও পর্দা হবে। নিজ ঘরে যদি পরপুরুষ বা পরনারী (যার সাথে বিয়ে বৈধ) না থাকে তাহলে পোশাকের পর্দা শিথিলযোগ্য কিন্তু সেক্ষেত্রে সাবধান থাকা জরুরি যেমনঃ বাইরে থেকে যদি ঘরের ভেতরের পরিবেশ দেখা যায়- এমন ক্ষেত্রে।

উত্তর প্রদান করেছেন কমবক্তা

ছেলেদের পর্দাঃ


১. জামা পরতে হবে যা হাতের কনুইয়ের নিচ পর্যন্ত এবং কোমরের নিচ পর্যন্ত ঢেকে রাখতে পারে, প্যান্ট কমপক্ষে হাটুর নিচ পর্যন্ত ঢাকতে পারে- এরকম হতে হবে।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

+1 টি ভোট
3 টি উত্তর
0 টি ভোট
1 উত্তর
21 অগাস্ট 2014 "ধর্ম ও বিশ্বাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন তানভীর
0 টি ভোট
1 উত্তর
31 অগাস্ট 2013 "ধর্ম ও বিশ্বাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অজ্ঞাত সদস্য
+3 টি ভোট
2 টি উত্তর
0 টি ভোট
2 টি উত্তর
0 টি ভোট
4 টি উত্তর
29 মার্চ 2013 "ধর্ম ও বিশ্বাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অজ্ঞাত সদস্য
0 টি ভোট
1 উত্তর

 

(হেল্পফুল হাব এ রয়েছে এক বিশাল প্রশ্নোত্তর ভান্ডার। তাই নতুন প্রশ্ন করার পূর্বে একটু সার্চ করে খুঁজে দেখুন নিচের বক্স থেকে)

(হেল্পফুল হাব সকলের জন্য উন্মুক্ত তাই এখানে প্রকাশিত প্রশ্নোত্তর, মন্তব্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর)

...